1. pressmedia24@yahoo.com : pressmedia24 :
  2. sujitpauldhaka@gmail.com : sujitdhaka :
বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ০৮:৩৬ পূর্বাহ্ন

ঘুরে আসতে পারেন বাংলার এক সময়কার রাজধানী “পানাম নগর”

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৯
  • ১৯০ Time View

ডে-ট্রিপ এর জন্য বিখ্যাত নারায়ণগঞ্জ এর পানাম নগর। ঢাকা থেকে একদিনের মধ্যে ঘুরে আসার জন্য ঈসা খাঁ এর আমলের বাংলার রাজধানী পানাম নগর হতে পারে আপনার প্রথম পছন্দ।

এস কে উল্লাস, প্রেসমিডিয়া টোয়েন্টিফোর ডটকম 

“”পানাম নগর”” নারায়ণগঞ্জ জেলার, সোনারগাঁতে অবস্থিত একটি ঐতিহ্যবাহী প্রাচীন শহর। বড় নগর, খাস নগর, পানাম নগর -প্রাচীন সোনারগাঁর এই তিন নগরের মধ্যে পানাম ছিলো সবচেয়ে আকর্ষণীয়।

এখানে কয়েক শতাব্দী পুরনো অনেক ভবন রয়েছে, যা বাংলার বার ভূইয়াঁদের ইতিহাসের সাথে সম্পর্কিত। সোনারগাঁর ২০ বর্গকিলোমিটার এলাকাজুড়ে এই নগরী গড়ে ওঠে।

পানাম নগর পৃথিবীর ১০০টি ধ্বংসপ্রায় ঐতিহাসিক শহরের একটি। পানাম বাংলার প্রাচীনতম শহর। এক সময় ধনী হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকদের বসবাস ছিল এখানে। ছিল মসলিনের জমজমাট ব্যবসা। প্রাচীন সেই নগরীর তেমন কিছু আর অবশিষ্ট নেই।

এখন আছে শুধু ঘুরে দেখার মতো ঐতিহাসিক পুরনো বাড়িগুলো। World Monument Fund ২০০৬ সালে পানাম নগরকে বিশ্বের ধ্বংসপ্রায় ১০০টি ঐতিহাসিক স্থাপনার তালিকায় প্রকাশ করে।

নীলকুঠি:

ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানীর নীলচাষের নির্মম ইতিহাসের নীরব সাক্ষী হয়ে রয়েছে পানামের নীলকুঠি। পানাম পুলের কাছে দুলালপুর সড়কের পাশেই এর অবস্থান। জানা যায়, শুরুতে এটি কোম্পানীর মসলিন বস্ত্র ক্রয়কেন্দ্রের দপ্তর ভবন হলেও পরে কুঠিটি নীল ব্যবসাকেন্দ্র হয়ে ওঠে। যদিও বর্তমানে (২০০৪) নীলকুঠির মূল রূপ ঢাকা পড়ে গেছে নতুন করে করা পলেস্তারার নিচে।

পানাম-দুলালপুর পুল:

পঙ্খীরাজ খালের ওপর ১৭ শতকে এই পুলটি নির্মিত হয়েছিলো, যা আমিনপুর ও দুলালপুর গ্রামের সংযোগ রক্ষা করছে। তিনটি খিলানের উপর পুলটি স্থাপিত। পুলের নিচ দিয়ে পণ্যবাহী নৌযান চলাচলের সুবিধা দিতে মাঝখানের খিলানটি কিছুটা উঁচু করে বানানো। ১৯৭৭ খ্রিস্টাব্দে পুলটিতে সংস্কারকাজ চালানো হয়।

ঢাকার খুব কাছেই ২৭ কি.মি দক্ষিণ-পূর্বে নারায়নগঞ্জ এর খুব কাছে সোনারগাঁতে অবস্থিত এই নগর। ঐতিহাসিকভাবে এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি শহর। জানা যায়, ১৪০০ শতাব্দীতে এখানে একটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয় যেখানে পৃথিবীর নামি-দামি শিক্ষকরা পড়াতে আসতেন। এখানে একটি ভৃত্য বাজার ছিল বলে জানা যায়।

পানাম নগরীর দুই ধারে ঔপনিবেশিক আমলের মোট ৫২টি স্থাপনা রয়েছে। এর উত্তরদিকে ৩১টি এবং দক্ষিণদিকে ২১টি স্থাপনা অবস্থিত। স্থাপনাগুলোর স্থাপত্যে ইউরোপীয় শিল্পরীতির সাথে মোঘল শিল্পরীতির মিশ্রণ লক্ষ করা যায়। পানাম নগরী নিখুঁত নকশার মাধ্যমে নির্মাণ করা হয়েছে। প্রায় প্রতিটি বাড়িতেই কূপসহ আবাস উপযোগী নিদর্শন রয়েছে। নগরীর পানি সরবরাহের জন্য দুপাশে খাল ও পুকুরের অবস্থান লক্ষ করা যায়। এখানে আবাসিক ভবন ছাড়াও উপাসনালয়, গোসলখানা, পান্থশালা, দরবার কক্ষ ইত্যাদি রয়েছে।

 

পানাম নগরের আশে পাশে আরো কিছু স্থাপনা আছে যেমন- ছোট সর্দার বাড়ি, ঈশা খাঁর তোরণ, নীলকুঠি, বণিক বসতি, ঠাকুর বাড়ি, পানাম নগর সেতু ইত্যাদি। এখানে আরো আছে চমৎকার একটি লোকশিল্প যাদুঘর। জাদুঘর কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে হস্ত শিল্প ও কুটির শিল্পের বিভিন্ন দোকান। বাচ্চাদের বিনোদনের জন্য রয়েছে বিভিন্ন খেলনা, পাঠাগার সহ বিভিন্ন স্থাপনা।

প্রবেশ মূল্য:

পানাম নগর এ প্রবাসের জন্য আপনাকে জনপ্রতি ১৫ টাকা টিকেট সংগ্রহ করতে হবে এবং জাদুঘরের জন্য ৩০ টাকা প্রবেশমূল্য, তবে বিদেশি পর্যটকদের জন্য ১০০ টাকা প্রবেশমূল্য করা হয়েছে। ছোট সরদার বাড়ি ঢুকতে হলে গুনতে হয় বাড়তি ১০০ টাকা। এছাড়াও পানাম নগর ও জাদুঘর এর জন্য রয়েছে আলাদা গাড়ি ও মোটরসাইকেল পার্কিং এর ব্যবস্থা।

থাকা ও খাবার ব্যবস্থা:

কেউ যদি কয়েকদিন থেকে সোনারগাঁর বিভিন্ন স্থান ভ্রমণ করতে চান, তাদের জন্য রয়েছে বিভিন্ন মানের বিভিন্ন দামের আবাসিক হোটেল। আর খাবার জন্য পুরো শহরজুড়ে এবং পানাম নগর এর পাশে ও রয়েছে বাংলা খাবারের হোটেল।

যাতায়াত ব্যবস্থা:

ঢাকার গুলিস্তান থেকে প্রথমে মোগরাপাড়ার যেতে হবে। এর জন্য দোয়েল বাসে আপনার অপেক্ষয় স্টিডিয়ামের ২ নং গেটের পাশে। ৪৫-৫০ টাকা ভাড়া নিবে মোগরাপাড়ার পর্যন্ত। বাস থেকে নেমে অটো রিক্সা অথবা সিএনজি জনপ্রতি ১৫ থেকে ২০ টাকায় পৌঁছে দেবে পানাম নগর।

তথ্য: উইকিপিডিয়া
লেখা ও ছবি: এস কে উল্লাস

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

More News Of This Category

হাইলাইটস

পুরোনো সংবাদ পড়ুন

আগস্ট ২০২১
সোম মঙ্গল বুধ বৃহঃ শুক্র শনি রবি
« জুন    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  

ভিডিও গ্যালারি